মুকুট নিয়ে কাড়াকাড়ি, আহত মিসেস শ্রীলংকা


বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্থানীয় সময় রোববার রাতে আয়োজন হয় মিসেস শ্রীলংকা ২০২০-এর ফাইনাল। দেশসেরা সুন্দরীদের মধ্যে থেকে বাছাই হয়ে ফাইনালে আসেন তিন প্রতিযোগী। এরপর সেরাদের সেরা ঘোষিত হন পুস্পিকা ডি সিলভা। তাকে সেরা সুন্দরীর মুকুট পড়িয়ে দেন আয়োজকরা। কিন্তু বিপত্তির শুরু এরপরই।
গতবারের চ্যাম্পিয়ন মিসেস শ্রীলংকা ২০১৯, ক্যারোলিন জুরি এসময় মঞ্চে উপস্থিত হয়ে কেড়ে নেন পুস্পিকার মুকুট। টানাহেঁচড়ায় মাথায় আঘাত পান পুস্পিকা ডি সিলভা।
ক্যারোলিন দাবি করেন, পুস্পিকা তালাকপ্রাপ্ত আর তাই প্রতিযগিতার নিয়াম অনুসারে মিসেস শ্রীলংকার খেতাব পাওয়ার যোগ্য নয় সে। এরপর প্রথম রানার্স আপ হওয়া প্রতিযোগীকে সেরা সুন্দরীর মুকুট পড়িয়ে দেন তিনি। এদিকে কাঁদতে কাঁদতে মঞ্চ ছাড়েন পুস্পিকা।
রোববার বিজয়ীর মুকুট মাথায় দিয়েই অনুষ্ঠান শেষ করেন প্রথম রানার্স আপ নারী। অন্যদিকে মাথায় চোট পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন পুস্পিকা ডি সিলভা।
অনুষ্ঠান শেষে এক বিবৃতিতে পুস্পিকা ডি সিলভা জানান, এই মুহূর্তে স্বামীর কাছ থেকে আলাদা থাকলেও তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়নি। ফলে মিসেস শ্রীলঙ্কা খেতাব অর্জনে তার কোন বাধা থাকার প্রশ্নই ওঠে না। পুস্পিকার এই দাবি মেনে নিয়ে তাকে পুনরায় বিজয়ী ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত জানান আয়োজকরা।
শ্রীলংকার দেশসেরা সুন্দরীদের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতায় এমন অঘটনে স্তব্ধ গোটা দেশ। বিবিসি জানায়, আয়োজক প্রতিষ্ঠান মিস ওয়ার্ল্ড শ্রীলংকার প্রধান পরিচালক চন্দিমাল জয়সিংহ ও মিস শ্রীলংকা ২০১৯ ক্যারোলিন জুরিকে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

The Ukhiya News
Social Share Buttons and Icons powered by Ultimatelysocial