প্রণব মুখোপাধ্যায়: বাংলাদেশের বন্ধু, ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি

বাথরুমে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পাওয়ার পর গত ১০ অগাস্ট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ৮৪ বছর বয়সী প্রণব মুখোপাধ্যায়। অস্ত্রোপচার করতে গিয়ে তার শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণও ধরা পড়ে। এক পর্যায়ে তিনি চলে যান গভীর কোমায়। সোমবার তার জীবনের অবসান ঘটার ঘোষণা আসে।

ভারতের বিভিন্ন সরকারে পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, বাণিজ্য ও অর্থের মতো গুরুত্বপূর্ণ সব মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা বিরল এ রাজনীতিকের প্রজ্ঞা, জ্ঞান, দক্ষতা আর ত্যাগের ভূয়সী প্রশংসা পাওয়া যাবে বিরোধী মত ও দর্শনের রাজনীতিকদের মুখ থেকেও, যা তার ভারতরত্ন খেতাব পাওয়ার যথার্থতা তুলে ধরে।

পশ্চিম বাংলার এই কংগ্রেস নেতা একাত্তরে পাশে দাঁড়িয়ে এপার বাংলার মানুষকেও কৃতজ্ঞতার বন্ধনে আবদ্ধ করেন। তার স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১৩ সালে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’ দেওয়া হয়।

বিয়ের সূত্রেও বাংলাদেশের সঙ্গে বন্ধনে জড়িয়ে ছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়, তার স্ত্রী শুভ্রা মুখোপাধ্যায় ছিলেন বাংলাদেশের নড়াইলের সন্তান। ২০১৩ সালে বাংলাদেশে এসে নড়াইলের ভদ্রবিলায় শ্বশুরালয়েও ঘুরে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ‘জামাইবাবু’ প্রণব মুখোপাধ্যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

The Ukhiya News
Social Share Buttons and Icons powered by Ultimatelysocial